শিশু ধর্ষণকারী টুটুল তিন দিনের রিমান্ডে

প্রকাশিত: ১০:৫৭ পূর্বাহ্ণ, মে ৪, ২০২০

রাজধানীর কদমতলীতে ছয় বছরের শিশু ধর্ষণের ঘটনায় গ্রেপ্তার  সেই টুটুলকে তিন দিনের রিমান্ডে নেওয়া হয়েছে। গতকাল রবিবার ঢাকার মুখ্য মহানগর হাকিম আদালত তার তিন দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

গতকাল দুপুরের পর টুটুলকে আদালতে হাজির করে তদন্ত কর্মকর্তা ১০ দিনের রিমান্ডের আবেদন করেন। মহানগর হাকিম বাকী বিল্লাহর আদালতে শুনানি হয়। শুনানি শেষে আদালত তিন দিন রিমান্ড মঞ্জুর করেন। গত ১ মে রাতে তাকে কদমতলী এলাকা থেকে গ্রেপ্তার করা হয়।

গত ২৫ এপ্রিল সন্ধ্যার দিকে ছয় বছরের এক শিশুকে ধর্ষনের পর তাকে মুরাদপুর এলাকায় ফেলে রেখে যাওয়া হয়। ওইদিনই সন্ধ্যার পর শিশুকে উদ্ধারের পর তার বাবা কদমতলী থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন আইনে ধর্ষণের অভিযোগে মামলা করেন। কিন্তু ধর্ষণকারীকে সনাক্ত করা যাচ্ছিল না।

পরে মুরাদপুর এলাকায় ধর্ষণের স্থানটির আশপাশের ১৬টি বাড়ির সিসি ক্যামেরার ভিডিও ফুটেজ জব্দ করে পুলিশ। একটি ভিডিও ফুটেজে দেখা যায়, এক যুবক শিশু মেয়েটি হাত ধরে রাস্তা দিয়ে হেঁটে যাচ্ছে। কিন্তু যুবকের মুখে মাস্ক পরা ছিল বলে তাকে সনাক্ত করা যাচ্ছিল না। পরে সাখাওয়াত তমাল নামে এক শিল্পীকে দিয়ে সন্দেহভাজন যুবকের স্কেচ এঁকে নেওয়া হয়। ওই স্কেচের ১০০ কপি পোস্টার বানানো হয়। পোস্টার এলাকায় টানানোর পর একজন ফোন করে ওই যুবকের পরিচয় নিশ্চিত করে। এরপর তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, টুটুলের বাসা মুগদা এলাকায়। সে কদমতলীতে তার নানা ও খালার মুরাদপুরের বাসায় মাঝে মাঝে বেড়াতে যেত। মেয়েটিকে সে ফুসলিয়ে নিয়ে ধর্ষণ করে।

পুলিশ প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, টুটুলকে গ্রেপ্তারের পর সে ধর্ষণের কথা স্বীকার করেছে। তবে ধর্ষণের কারণসহ অন্যান্য তথ্যাদি জানার জন্য তাকে নিবিড়ভাবে জিজ্ঞাসাবাদ করা প্রয়োজন।