রাজশাহীতে ত্রাণের দাবিতে সড়কে নিম্ন আয়ের মানুষ

প্রকাশিত: ১২:৪৪ অপরাহ্ণ, মে ৪, ২০২০

ত্রাণ না পেয়ে রাজশাহীতে সড়ক অবরোধের পর বিক্ষোভ করেছেন নিম্ন আয়ের মানুষ।

বিক্ষোভকারীদের অভিযোগ, তারা ২৪ নম্বর ওয়ার্ডের স্থায়ী বাসিন্দা। করোনার জন্য বর্তমানে বেকার হয়ে পড়ে থাকলেও কোনো ত্রাণ সহায়তা পাচ্ছেন না। এতে তারা পরিবার-পরিজন নিয়ে মানবেতর জীবনযাপন করছেন। উদ্ভুত পরিস্থিতিতে ত্রাণের দাবিতে তারা বাধ্য হয়ে আজ সড়কে নেমে বিক্ষোভ করেছেন।

তাদের দাবি, ত্রাণ দেওয়ার কথা বলে কিছুদিন আগে জাতীয় পরিচয়পত্রের ফটোকপি নিয়েছিলেন ২৪ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর আরমান আলী। কিন্তু ত্রাণ দেওয়া হয়নি। এখন এক হলে ত্রাণ দেওয়া হোক, না হলে লকডাউন তুলে নেওয়া হোক এমন দাবি জানান বিক্ষুব্ধরা।

ওই এলাকার কলিম উদ্দিন নামে একজন বিক্ষোভকারী জানান, বেশ কিছুদিন আগে খরবোনা এলাকা থেকে তাদের ২৪ নম্বর ওয়ার্ডের লোকজন জাতীয় পরিচয়পত্র নিয়ে যায় ত্রাণ দেয়ার নামে। কিন্তু অনেকদিন পার হয়ে গেলেও তাদের কোনো ত্রাণ দেয়া হয়নি। কাউন্সিলর কাদের ত্রাণ দিয়েছেন তারা জানেন না। ক্ষুধা না সহ্য করতে পেরে বাধ্য হয়ে সড়কে নেমেছেন।

এদিকে ত্রাণ না দেওয়ার অভিযোগ অস্বীকার করেছেন ২৪ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর আরমান আলী। তিনি বলেন, সোমবার সকাল থেকে আমাদের এ অঞ্চলের কিছু অটোরিকশাচালক গ্যারেজ খুলে দেওয়ার দাবিতে বিক্ষোভ করেছিলেন। ঘটনাস্থলে ম্যাজিস্ট্রেট এসেছিলেন। তার আশ্বাসে বিক্ষোভকারীরা চলে গেছে।

ত্রাণের বিষয়ে স্থানীয় ওয়ার্ড কাউন্সিলর আরও বলেন, তার এলাকার নিম্ন আয়ের মানুষের তালিকা করে ত্রাণ দেওয়া হয়েছে। এখানে কোনো উচ্চবিত্ত পরিবারকে ত্রাণ দেওয়া হয়নি। ত্রাণ না পাওয়ার এ অভিযোগ সত্য নয় বলেও দাবি করেন ২৪ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর।