মন্দিরে গিয়ে খাদ্যসামগ্রী বিতরণ করলেন আফ্রিদি

প্রকাশিত: ১১:৪০ পূর্বাহ্ণ, মে ১৪, ২০২০

করোনা ভাইরাস কোনো জাতি-ধর্ম-বর্ণ মানে না। ফলে এই কঠিন সময়ে সবরকমের ভেদাভেদ ভুলে সবাইকে পরস্পরের পাশে দাঁড়াতে হবে। এর বড় উদাহরণ শহিদ আফ্রিদি। ধর্মীয় ভেদাভেদ ভুলে পাকিস্তানের একটি মন্দিরে খাদ্যসামগ্রী বিলি করেছেন পাকিস্তানের সাবেক এই অলরাউন্ডার।

করোনা মহামারির আগমনের পর থেকে নিজ দেশের ক্ষতিগ্রস্ত অসহায় মানুষদের পাশে দাঁড়িয়েছেন আফ্রিদি। নিজের প্রতিষ্ঠিত সংগঠন ‘আফ্রিদি ফাউডেনশন’র মাধ্যমে দেশের কর্মহীন অভুক্ত মানুষের দিকে সহায়তার হাত বাড়িয়ে দিয়েছেন। দেশের নানান প্রান্তে ঘুরে ঘুরে নিজ হাতে দুস্থদের মাঝে খাদ্যসামগ্রী বিলি করেছেন সাবেক এই অধিনায়ক।

সম্প্রতি নিজ দেশের একটি হিন্দু মন্দিরে খাদ্যসামগ্রী নিয়ে হাজির হন আফ্রিদি। সেখানেও নিজ হাতে অভুক্তদের মাঝে খাবার বিলি করেন তিনি। সেই ছবি টুইটারে পোস্ট করে আফ্রিদি লেখেন, ‘আমরা এখন একসঙ্গে সংকটে পড়েছি এবং ঐক্যবদ্ধভাবে আমাদের লড়তে হবে। একতাই আমাদের শক্তি। খাদ্যসামগ্রী বিতরণ করতে শ্রী লক্ষ্মীনারায়ণ মন্দিরে গিয়েছিলাম।’

মন্দ্রিরে খাদ্য বিতরণের কাজে আফ্রিদির সঙ্গী হয়েছিলেন পাকিস্তানের বিখ্যাত স্কোয়াশ তারকা জাহাঙ্গীর খান ও ‘এসএএফ ফাউন্ডেশন’র প্রেসিডেন্ট। আফ্রিদি তার টুইটে তাদের ধন্যবাদ জানিয়ে নিচে লিখেছেন, ‘হোপ নট আউট’। আফ্রিদির এমন মহৎ উদ্যোগের প্রশংসায় পঞ্চমুখ নেটিজেনরা।

এখন পর্যন্ত প্রায় ২২ হাজার পরিবারের মাঝে খাদ্য সহায়তা দিয়েছেন আফ্রিদি। নিজের কাজে খুশি হলেও এখানেই থেমে থাকতে চান না ‘বুমবুম’। এখনও অনেক কাজ বাকি আছে বলে জানিয়েছেন তিনি। আফ্রিদির কাজের প্রশংসা করে তার প্রতি সমর্থন দিয়েছেন দুই সাবেক ভারতীয় ক্রিকেটার যুবরাজ সিং ও হরভজন সিং। যুবরাজ এমনকি আফ্রিদি ফাউন্ডেশনে আর্থিক সহায়তা দিয়েছেন বলেও শোনা যাচ্ছে।