বিয়ের প্রশ্নই ওঠে না: জয়া

প্রকাশিত: ১:৩৩ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ২০, ২০১৯

দুই বাংলা জুড়েই এখন সৃজিত মুখার্জি ও মিথিলা রশীদের বিয়ের গুঞ্জন। আগামী ২২ ডিসেম্বর নাকি তাদের বিয়ে। এই খবরের সঙ্গে ভেসে এসেছে আরও এক তারকার বিয়ের খবর। যার সঙ্গে সৃজিতের নাম জড়িয়ে এর আগে একই ভাবে প্রেম ও বিয়ের খবর ছড়িয়েছিল। তিনি দুই বাংলার জনপ্রিয় অভিনেত্রী জয়া আহসান। কিছু দিন আগে ভারতীয় পত্রিকা টাইমস অব ইন্ডিয়ার অনলাইন সংস্করণ জয়াকে নিয়ে একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করে।

সেখানে দাবি করা হয়, জয়া নাকি বাংলাদেশি একজনের সঙ্গে প্রেম করছেন। তবে তিনি চলচ্চিত্র জগতের কেউ নন। খুব শিগগির নাকি তারা বিয়ে করবেন। তবে বিয়ের দিনক্ষণ এখনও ঠিক করা হয়নি। কিন্তু সম্প্রতি একটি সাক্ষাৎকারে জয়া জানালেন, ‘টাইমস অব ইন্ডিয়ার প্রতিবেদন একেবারেই সঠিক নয়। আমি তাদের বলেছিলাম, আমার স্পেশাল একজন বন্ধু আছে। সে আমার খুবই ভালো বন্ধু।

 

 

কিন্তু সেটা কখনোই প্রেম বা ভালোবাসার মতো কিছু নয়। আর বিয়ের তো প্রশ্নই আসে না।’ নায়িকা আরও বলেন, ‘দুই দেশ মিলিয়ে আমার হাতে প্রচুর কাজ। এত সময় নেই যে কারও সঙ্গে প্রেম করব। তাছাড়া আমার মতো একজন ব্যস্ত মানুষের সঙ্গে কে ই বা প্রেম করবে বলুন। প্রেম করতে হলে তো সময় দিতে হয়। আমার সেই সময় কোথায়। তাই আমার সব প্রেম আপাতত কাজের সঙ্গে।’

কাজের দিক থেকে সম্প্রতি বাংলাদেশে মুক্তি পায় জয়া অভিনীত ভারতীয় ছবি ‘কণ্ঠ’। বর্তমানে মুক্তির অপেক্ষায় রয়েছে তার বাংলাদেশি ছবি ‘অলাতচক্র’। জনপ্রিয় লেখক আহমেদ ছফার ‘অলাতচক্র’ গল্প অবলম্বনে নির্মিত হয়েছে ছবিটি। সেখানে রয়েছে মুক্তিযুদ্ধের নানা ঘটনা। সরকারি অনুদানের এ ছবির প্রযোজকও জয়া।সারা দিন শুটিংয়ে ব্যস্ত থাকলেও সন্ধ্যায় কথা হয় জয়ার সঙ্গে।

 

 

প্রথম আলোকে জানালেন, ‘আমার বিশেষ বন্ধু আছে। কিন্তু সেটা কখনোই প্রেমঘটিত কিছু না। অনেক দিন ধরে টাইমস অব ইন্ডিয়া থেকে আমাকে প্রশ্ন করেছিল প্রেম ও ভালোবাসার সম্পর্ক নিয়ে। আমি কিন্তু তাঁদের বলেছি, আমার স্পেশাল বন্ধু আছে। খুবই ভালো বন্ধু আছে। কিন্তু এটা কখনোই প্রেম কিংবা ভালোবাসা নয়। আর বিয়ের তো প্রশ্নই ওঠে না।’

জয়া বলেন, ‘আমি এমনভাবে কাজ করি, দুই দেশ মিলিয়ে—আমার হাতে এমন অখণ্ড সময় নেই যে কারও সঙ্গে প্রেম করব। আমার মতো এত ব্যস্ত একজন মানুষের সঙ্গে কে–ইবা প্রেম করবে বলেন! প্রেম করতে গেলে সময় দিতে হয়, আমি তো সেই সময় দিতে পারব না। আমার সেই সময় কোথায়। আমার সব প্রেম আপাতত কাজের সঙ্গে।’