বিসিবি পরিচালক লোকমানের বিষয়ে কঠোর ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী

প্রকাশিত: ৪:৪১ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ২৯, ২০১৯

সচিবালয়ে প্রতিক্রিয়া জানাচ্ছিলেন সাকিব আল হাসানের আইসিসি থেকে নিষেধাজ্ঞার প্রসঙ্গ নিয়ে। যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী মো. জাহিদ আহসান রাসেল এমপিকে এক পর্যায়ে উত্তর দিতে হলো বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের পরিচালক লোকমান হোসেন ভুঁইয়াকে নিয়েও।

ক্যাসিনো কান্ডে জড়িত থাকার অভিযোগে গ্রেফতার হওয়ার পরও কেন লোকমান হোসেনকে বিসিবিতে রাখা হয়েছে, যেখানে এ বিষয়টি নিয়ে মতামত দিয়েছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরও।

বিসিবি থেকে লোকমান হোসেন ভুঁইয়াকে কেন সরানো হচ্ছে না, এমন প্রশ্নের জবাবে যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী মো. জাহিদ আহসান রাসেল বলেছেন, ‘আপনারা জানেন, ক্রিকেট বোর্ড একটা গঠণতন্ত্র অনুযায়ী চলে। আইসিসির নিয়ম অনুযায়ী চলে। তবে যেহেতু ইতিমধ্যে মোটামুটি প্রমাণিত হয়ে গেছে যে, সে ক্যাসিনো কান্ডে জড়িত ছিল। আমার মনে হয় যে, এখনো তাকে রেখে দেয়াটা মানুষ ভালো চোখে দেখছে না। অবশ্যই তার বিরুদ্ধে অ্যাকশন হওয়া উচিত। আমার মতে দ্রুত তাকে এ পদ থেকে সরিয়ে দেয়া উচিত। পরবর্তীতে যদি আইনগতভাবে সে নির্দোষ প্রমাণিত হয় তখন দেখা যাবে। এখন যেহেতু সে ইতিমধ্যে তার বিভিন্ন বক্তব্য এসেছে সে ক্যাসিনো কান্ডে জড়িত এবং তার টাকা পাচারের কথাগুলোও উঠে এসেছে, তাই ব্যক্তিগতভাবে আমি মনে করি তাকে সরিয়ে দেয়া উচিত।’

লোকমান হোসেনের বিষয় নিয়ে বিসিবির সভাপতি সঙ্গে তার কোনো কথা হয়েছে কিনা জানতে চাইলে ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী বলেন, ‘হ্যাঁ। এ বিষয়ে আমি বিসিবি সভাপতির সঙ্গে কথা বলেছি। তাকে বলেছি বিষয়টি নিয়ে দ্রুত সিদ্ধান্ত নেয়া উচিত।’

তখন কী বলেছিলেন বিসিবি সভাপতি? ‘ওনারা বলেছিল বিষয়টি দেখছে।’ কিন্তু তাতো অনেক দিন হয়ে গেলো। কোনো সিদ্ধান্ত তো হয়নি। ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী বলেন, ‘আসলে এরপর অনেক ঘটনা সামনে চলে আসায় এ বিষয়টি আর ওঠেনি। বিশেষ করে ক্রিকেটারদের ধর্মঘট। সামনে আমাদের ইন্ডিয়া ট্যুর আছে। ক্রিকেটারদের বিষয়ে আমরা বেশি গুরুত্ব দিয়েছি যাতে দ্রুত সমাধান হয়। এরপর আরেকটা ঘটনা চলে এসেছে।’

ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী আভাস দিলেন, এখন তারা সাকিবের বিষয়টি নিয়েই বেশি গুরুত্ব দিচ্ছেন, ‘খেলোয়াড়রা দেশের সম্পদ। তাদের রক্ষা করাও আমাদের দায়িত্ব। তারা যদি কোনো অন্যায় না করে থাকে, তাহলে যেন কোনো শাস্তি না দেয়া হয় সে বিষয়ে আমরা চেষ্টা করবো। আমি ক্রিকেট বোর্ডকেও বলেছি তারা যেন আইসিসির সঙ্গে যোগাযোগ রাখে এবং বিষটির দ্রুত সুরাহা করে।’