জাপানে ৩০ মিনিটে করোনা শনাক্তের অ্যান্টিজেন টেস্টের অনুমোদন

প্রকাশিত: ১১:৩৩ পূর্বাহ্ণ, মে ১৪, ২০২০

করোনা ভাইরাস আক্রান্তদের দ্রুত চিহ্নিত করতে গতকাল বুধবার অ্যান্টিজেন পরীক্ষার অনুমোদন দিল জাপানের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়। এই অ্যান্টিজেন পরীক্ষা কীভাবে চালানো হবে, কাদের পরীক্ষা করতে হবে, সে বিষয়ে একটি নির্দেশিকাও তৈরি করছে জাপান সরকার।

জাপানভিত্তিক সংবাদসংস্থা কোয়দো নিউজের এক খবরে এ কথা জানা যায়।

করোনার সংক্রমণ রোধে দ্রুত পরীক্ষা এই মুহূর্তে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। অ্যান্টিজেন পরীক্ষায় মাত্র ৩০ মিনিটেই করোনা পজিটিভ শনাক্ত করা যাবে। সময় কম লাগায় জাপানে বাড়বে করোনা পরীক্ষার হার।

বর্তমানে কোভিড-১৯ সংক্রমণ শনাক্তকরণের প্রাথমিক পদ্ধতি হচ্ছে পিসিআর পরীক্ষা। এই পরীক্ষায় বিশেষ দক্ষতা থাকা অপরিহার্য। তবে নতুন অ্যান্টিজেন কিট ব্যবহারের জন্য দক্ষতার প্রয়োজন নেই। পিসিআর পরীক্ষার ফল পেতে ৪ থেকে ৬ ঘণ্টা পর্যন্ত সময় লেগে যায়। অন্যদিকে, অ্যান্টিজেন পরীক্ষায় সর্বোচ্চ আধাঘণ্টা সময় লাগবে। তবে এই অ্যান্টিজেন পরীক্ষা পিসিআর পরীক্ষার মতো নির্ভুল নয়। এই পরীক্ষা সব ধরনের সংক্রমণ শনাক্ত করতেও সক্ষম নয়।

জাপানের টোকিও, কানাগাওয়া, ওসাকা, হোক্কাইদোসহ যেসব জায়গায় সংক্রমণের হার বেশি, সেসব জায়গায় করোনা পরীক্ষার ক্ষেত্রে এই কিট কাজে লাগানো হবে। করোনা ভাইরাস হাসপাতালগুলোর বহির্বিভাগে এই কিটের মাধ্যমে পরীক্ষা করে করোনা শনাক্ত করা হবে। এই কিটের প্রস্তুতকারক কোম্পানি ফুজি-রেবিও জানিয়েছে, সপ্তাহে দুই লাখ কিটের জোগান দিতে পারবে তারা।